প্রফেসরের রিপ্লাই থেকে কী বুঝবেন?

প্রথমেই বলে নিই, নিচের মতামতগুলো আমার নিজের মেইল চালাচালি করার অভিজ্ঞতা থেকে থেকে প্রাপ্ত। এগুলোকে ঐতিহাসিক সত্য বলে ধরে নেওয়া ঠিক হবে না। কারণ আপনার অভিজ্ঞতা আমার চেয়ে ভিন্ন হতে পারে।

প্রফেসরদের সাথে মেইলে যোগাযোগ করতে গিয়ে অনেক ধরনের প্রত্যুত্তর পেয়েছি। এর মধ্যে কয়েকটা কাটকাট স্পষ্ট ভাষায় বর্ণিত, কয়েকটা হালকা অস্পষ্ট ভাষায়, কয়েকটা অস্পষ্ট ভাষায়। নিচের উদাহরণগুলো দেখলে ব্যাপারটা বুঝা যাবে।

স্পষ্ট ভাষা

১) প্রফেসর লিখলেন, “I am not taking any new students for now.” । এটা একটা নেগেটিভ উত্তর। তাই আপনার পরবর্তী ধাপ হবে আরেকজন প্রফেসরকে নক করা।

২) প্রফেসর লিখলেন, “Professors are matched with students after they are accepted into our program. If you’re interested in the University of Arizona, please apply to our program.” । এটা দিয়ে বুঝা যায়, এই ভার্সিটিতে অ্যাডমিশনের আগে প্রফেসরের সাথে কন্টাক্ট করলে আপনি তেমন সুবিধা পাবেন না। কারণ এখানে প্রফেসর অরিয়েন্টেড অ্যাডমিশন নয়।

৩) প্রফেসর লিখলেন, “Would you like to set up a call (skype) to chat?” । এটা একটা পজিটিভ রিপ্লাই। উনি আপনার প্রোফাইল পছন্দ করেছেন বলেই আপনাকে স্কাইপ ইন্টার্ভিউয়ের জন্য মনোনীত করেছেন। এখন বাকি কাজ আপনার হাতে। ইন্টার্ভিউয়ে অংশ নেবেন কিনা জানিয়ে দিন, সেইদিনের জন্য প্রস্তুতি নিন।

অ্যাডমিশন পাকাপোক্ত করার জন্য এই ইন্টার্ভিউ অনেক বড় ভূমিকা রাখে। আপনার সিভি দেখে প্রফেসরের মনে যে ইম্প্রেশনটা তৈরি হয়েছে, সেটাকে হাজার গুণ বাড়িয়ে (বা কমিয়ে) দিতে পারে এই ইন্টার্ভিউ।

হালকা অস্পষ্ট ভাষা

১) প্রফেসর লিখলেন, “I am writing the proposal that would fund someone. I think your CV and skills do sound like a good match, but I cannot promise any funds at this time.” । এটা কিছুটা উৎসাহ দেবে আপনাকে। কিন্তু ফান্ডের ব্যাপারে পুরোপুরি নিশ্চিত হতে পারবেন না এটা থেকে। তাই আপনাকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে, উক্ত ভার্সিটিতে আপনি এপ্লাই করবেন কিনা এবং প্রফেসরের সাথে যোগাযোগ বজায় রাখবেন কিনা।

২) প্রফেসর লিখলেন, “At the current time, I am not sure if I will take another graduate student for fall of 2016. Please email me again in a couple months if you are still looking.” । এটাও আপনাকে নিশ্চিত করতে পারবে না অ্যাডমিশন বা ফান্ডের ব্যাপারে। তাই প্রফেসরের সাথে যোগাযোগ বজায় রাখাটাই পরবর্তী ধাপ হওয়া দরকার। সাথে অন্য প্রফেসরদের নক করার ব্যাপার তো আছেই!

৩) প্রফেসর লিখলেন, “I do not have funding at present. However, if you have an idea and we could look to pursue a grant (internal or external) for a project that you are interested in in general, we might know before you were to come here. However, there is no money at this time.” । আহ! বেশ উত্তর। এটাকে পুরোপুরি ইতিবাচকও ধরা যাচ্ছে না, নেতিবাচকও নয়। তাহলে এখন আপনার কাজ কী হবে?

যদি পারেন, তাহলে প্রফেসরের সাথে কিছু আইডিয়া/টপিক শেয়ার করবেন। এমন আইডিয়া শেয়ার করা দরকার যেগুলো নিয়ে আগে কাজ হয় নি। এরপর প্রফেসর কী রিপ্লাই দেন, দেখুন। আইডিয়া যদি উনাদের পছন্দ হয়, তাহলে হয়তো আপনার জন্য ফান্ড ম্যানেজ হয়ে যাবে।

৪) প্রফেসর লিখলেন, “I am not currently recruiting students to my laboratory.  However, I will keep your email and CV on file and will contact you if a position opens up. For your information, the minimum standards for acceptance into our university graduate school include:

  • GRE scores at or greater than the 40th percentile for verbal and quantitative sections”

খেয়াল করে দেখুন, উনি যদিও বলেছেন ওপেনিং হলে আমার সাথে যোগাযোগ করবেন, কিন্তু উনি আমাকে GRE scores এর ব্যাপারেও সাবধানবাণী দিয়েছেন। কারণ, GRE তে আমার কমতি আছে। এর মানে হলো, আপনি যদি GRE রিটেক নিয়ে কমতিটা পূরণ করে আসেন, আপনাকে উনি পজিটিভ কিছু বলতে উৎসাহী হবেন।

আমি অবশ্য উনাকে আমার অন্যান্য স্ট্রেংথ হাইলাইট করে জিজ্ঞেস করেছিলাম, “আমার সিজিপিএ ডিপার্টমেন্টের রিকোয়ারমেন্টের চেয়ে বেশি, সবগুলো প্রিরিকুইজিট কোর্স করা আছে। শুধু GRE verbal scores 40% এর নিচে। তবুও কি আমি অ্যাডমিশনের জন্য উপযুক্ত বলে বিবেচিত হব না?” উনি বলেছিলেন, “না। কারণ তুমি মিনিমাম স্কোর পাওনি। GRE রিটেক নিলে তোমার অ্যাডমিশনের সুযোগ বেড়ে যাবে।”

অস্পষ্ট ভাষা

প্রফেসর লিখলেন, “You may contact our department graduate program director, in this regard.” এরকম রিপ্লাই দেখলে চিন্তায় পড়াই স্বাভাবিক। প্রফেসর সরাসরি উত্তর (এবার স্টুডেন্ট নিবো/নিবো না) না দিয়ে কেন গ্র্যাড কোঅর্ডিনেটরকে জড়ালেন?

জড়ালেন, কারণ আপনার প্রোফাইল হয়তো উনার চাহিদামাফিক নয়। অথচ উনি স্টুডেন্ট নিতে আগ্রহী। এক্ষেত্রে আপনাকে বলাও যাচ্ছে না যে, উনি স্টুডেন্ট নিবেন না (কারণ সেটা মিথ্যা কথা হবে); আবার আপনার প্রতি উনার আগ্রহ আছে, এটা বলাও ঠিক হবে না। তাই উনি সাবধানে পাশ কাটিয়ে যাওয়ার জন্য এই ধরনের উত্তর দিতে পারেন। সেক্ষেত্রে আপনি কী করবেন?

আপনি গ্র্যাড কোঅর্ডিনেটরকে মেইল দিয়ে আপনার মনের প্রশ্নগুলো জানাতে পারেন। সেই সাথে ডিপার্টমেন্টের অন্য প্রফেসরদেরও নক করতে পারেন [এই পয়েন্টটি Shatabdi Goon Mistiর মস্তিষ্ক প্রসূত]।

অনেক সময় নেগেটিভ উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি প্রফেসররা আপনাকে আরেকজন প্রফেসরের নাম সাজেস্ট করতে পারেন। বা বলতে পারেন, “অন্যরা স্টুডেন্ট খুঁজছে। আপনি ডিপার্টমেন্টের অন্যদের নক করে দেখতে পারেন।” এটা কিছুটা হলেও আশাব্যঞ্জক। কিন্তু এটা নিশ্চিত করে না যে, আপনি ঐ ডিপার্টমেন্টের কারো না কারো কাছ থেকে পজিটিভ রিপ্লাই পাবেনই।
___________________________________________
পোস্টে কোনো ভুল কনসেপশন থাকলে মন্তব্যে উল্লেখ করার জন্য অনুরোধ করছি।
পড়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ!

Advertisements
This entry was posted in Uncategorized. Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s